দিরাইয়ে চলন্ত বাসে ধর্ষণচেষ্টার প্রধান আসামী গ্রেপ্তার

একাত্তর ডেস্ক :: সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে চলন্ত বাসে কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টার ১ সপ্তাহ পর প্রধান অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় করা মামলার প্রধান আসামি বাসচালক শহীদকে সুনামগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

শনিবার (২ জানুয়ারি) ভোর ৬টায় ঢাকা থেকে সুনামগঞ্জ আসার পর পুরাতন বাসস্ট‌্যান্ড থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ নিয়ে চাঞ্চল্যকর ওই ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় মোট দুইজনকে গ্রেপ্তার করল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান গ্রেপ্তারের তথ‌্য নিশ্চিত করে জানান, এখনো শহীদকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেনি সিআইডি।

এর আগে সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) ভোরে একই অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল যানটির চালকের সহকারী রশিদ আহমদকে। সেদিন সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার বুড়াইগাঁও থেকে তা‌কে গ্রেপ্তার করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় গ্রেপ্তার রশিদ আহমেদ দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, শনিবার সন্ধ্যায় উচ্চমাধ্যমিক প্রথম বর্ষের ওই ছাত্রী সিলেট থেকে বাসে করে দিরাই আসছিলেন। সুজানগর এলাকায় অন্য যাত্রীরা নেমে গেলে বাসের চালক ও তার সহকারী (হেলপার) ১৮ বছর বয়সী ওই কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। নিজেকে রক্ষা করতে গিয়ে বাস থেকে লাফ দিয়ে আহত হন ওই কিশোরী। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে দিরাই হাসপাতালে পাঠায়। সেখান থেকে চিকিৎসক তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

এ ঘটনায় ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে ২৬ ডিসেম্বর রাতে একটি মামলা করেন। মামলায় বাসচালক, চালকের সহকারীসহ অজ্ঞাতনামা তিনজনকে আসামি করা হয়।

একাত্তরেরকথা/ইআ