পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপে বসতভিটা ফিরে পেলেন প্রতিবন্ধী দুই সহোদর

ওসমানীনগর প্রতিনিধি :: সিলেটের পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিনের হস্তক্ষেপে সিলেটের ওসমানীনগরে বাক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ২ সহোদর ফিরে পেলো তাদের বসত ভিটা।
নিজ স্বজনদের মাধ্যমে পরিবার পরিজন নিয়ে মাথা গুজার ঠাই একমাত্র ঠাইটুকু বুধবার দুপুরে উপজেলার উছমান ইউপির তাহিরপুর গ্রামে পুলিশের সুপারের মাধ্যেমে ফিরে পেয়ে বেজায় খুশি প্রতিবন্ধী লেছু মিয়া(৩৫) ও খালিছ মিয়া(৩০)। শুধু বাড়ি ফিরে পায়নি দুই প্রতিবন্ধী সহোদার পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন প্রতিবন্ধী দুই ভাইকে নিজ বাড়িতে তুলে দিয়ে নতুন জামা কাপড় উপহার দেন তাদেরকে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ওসমানীনগর (সার্কেল) রফিকুল ইসলাম, ওসমানীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আতাউর রহমান, ওসি শ্যামল বণিকসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি। উল্লেখ্য, ২০ নভেম্বর সিরাজ মিয়া, তাজন মিয়া ও কবির মিয়া গংরা প্রতিবন্ধী লেছু মিয়া তার ছোট ভাই খালিছ মিয়াকে মারপিট করে তাদের পরিবার সহ বাড়ি থেকে বের করে দিলে প্রতিবন্ধী দুটি পরিবার আশ্রয়হীন হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় তাহিরপুর গ্রামের মৃত আব্দুস সালামের প্রতিবন্ধী ছেলে লেছু মিয়া ১ ডিসেম্বর ওসমানীনগর থানায় মামলা করলে পুলিশ সুপার বিষয়টি অবগত হলে পুলিশ সুপার রদি উদ্দিন নিজে তাহিরপুর গ্রামে বুধবার উপস্থিত হয়ে প্রতিবন্ধী দুই ভাইকে নিজ বসতঘরে তুলে দেন। এ ঘটনায় কবির মিয়া (৪৫) নামের একজনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে।