কাউন্সিলর সেলিমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্ট :: সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ সেলিমসহ ৫জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপতা আইনে মামলা হয়েছে। মামলায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথ্যা ও মানহানিকর তথ্য প্রচার করায় দৈনিক একাত্তরের কথা পত্রিকার প্রকাশকের ব্যক্তিগত সহকারী রানা মিয়া বুধবার কোতোয়ালি থানায় মামলাটি (মামলা নং-৯) দায়ের করেন।

মামলার এজহার নামীয় আসামিরা হচ্ছেন, বিয়ানীবাজারের দেউলগ্রামের মৃত আজিজুর রহমানের ছেলে সিসিকের ২২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ সেলিম, জকিগঞ্জের মহিদপুর গ্রামের মৃত মাসুকুর রহমানের ছেলে হুমায়ুন রশীদ সুমন ওরফে এইচ আর সুমন, উপশহর এফ ব্লকের ৪নং রোডের কামাল উদ্দিন, জকিগঞ্জের হাসিতলা সোনাসর গ্রামের মৃত কবির মিয়ার ছেলে কাজী জুবায়ের আহমদ ও মামলার অপর আসামী এহসান আহমদ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন কোতোয়ালি থানার ওসি সেলিম মিঞা। তিনি বলেন, কাউন্সিলর সেলিমসহ ৫জনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে রানা মিয়া নামের এক ব্যক্তি মামলা দায়ের করেছেন। এছাড়াও মামলায় আরও কয়েকজনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে। পুলিশ আসামীদের গ্রেপ্তার করার জন্য অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

মামলার এজাহার সূত্র জানায়, রোববার (২৯ নভেম্বর) দৈনিক একাত্তরের কথা পত্রিকায় ছালেহ আহমদ সেলিমকে নিয়ে প্রকাশিত ‘ভয়ে চুপ উপশহর’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত সংবাদের জেরে পত্রিকার প্রকাশক নজরুল ইসলাম বাবুল ও সম্পাদক চৌধুরী মমতাজকে সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার পাশাপাশি ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও ইন্টারনেটে বিভিন্ন ধরণের কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য প্রকাশ করা হয়।

এছাড়াও মামলার আসামি ছালেহ আহমদ সেলিম, এইচ আর সুমন, কামাল উদ্দিন, কাজী জুবায়ের, এহসান তাদের ফেসবুক আইডিতে বিভিন্ন অভিযোগ তুলে অপপ্রচার চালায়। এতে তারা পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদকের বিরুদ্ধে তাদের অশ্লীল সংলাপ, অডিও, ভিজ্যুয়াল চিত্র, ভিডিও প্রকাশ করে তাদের পরিবারের সদস্যদের সম্মান ক্ষুন্ন করে। এছাড়াও মঙ্গলবার কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ সেলিম অনলাইন চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে দৈনিক একাত্তরের পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদককে নিয়ে অশ্লীল বক্তব্য প্রকাশ করেন।