মেয়েটির পরিচয় ‘মোমিনা’

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: ‘মোমিনা’ ছোট্ট একটি মেয়ে। পরিচয় বলতে এই মুহুর্তে আর কিছু নেই। শুধু নাম তার পরিচয়! সে মানষিক প্রতিবন্ধি থাকার কারণে আর কিছু বলতে পারেনা। মেয়েটি হয়তোবা কোন অসহায় পরিবারের মেয়ে। দেখতে তেমনি মনে হয়। গরিব হোক বা ধনীই হোক হয়তোবা তার মা-বাবা পাগলের মতো খুঁজছেন। সে সদা হাস্যেজ্জ্বল গুলগাল চেহারা আর কালো রংয়ের অনুমান ১৪ বছরের একটি মেয়ে। তার মাথায় কুকুড়া কুকুড়া আউলা-জাউলা চুল। মেয়েটির পড়নে হলুদ রংয়ের পায়জামা-পিত কালারের জামা আর গায়ে সাদা ফুল তুলা ক্রিম কালারের একটি ওড়নাও রয়েছে। মঙ্গলাবার দুপুরে ওই মেয়েটিকে কোর্টের মাধ্যমে সেফহোমে পাঠানো হয়েছে। এর আগে সোমবার রাত সাড়ে ১১টায় বিশ^নাথের খুরমা গ্রাম থেকে উদ্ধার করে থানা পুলিশ।
জানা গেছে, সোমবার বেলা শেষে রাতে ভবঘুরে ওই মেয়েটি সিলেটের বিশ^নাথ উপজেলার অলংকারি ইউনিয়নের ছোট খুরমা গ্রামে হাটাচলা করছে। অপরিচিত একটি মেয়েকে দেখে ওই গ্রামের (সাবেক ইউপি সদস্য) রফিক মিয়া (৫০) নামের এক ব্যক্তি থানায় ফোন দিয়ে বিষয়টি পুলিশকে অবগত করেন। খবর পেয়ে থানার ওসি শামীম মুসার নির্দেশে এসআই বিমল চন্দ্র দাস সেখানে গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যান।
মেয়েটিকে উদ্ধার ও সেফহোমে পাঠিয়েছেন জানিয়ে থানার ওসি শামীম মুসা বলেন, মেয়েটির পরিবারের সদস্য কিংবা পরিচিত কেউ তাকে শনাক্তের জন্যে ইতিমধ্যে ‘বিশ^নাথ থানা’ নামের ফেসবুক আইডিতে মেয়েটির ছবিসহ একটি স্ট্যাটাস দেয়া হয়েছে।
হুবহু তা ধরে তুলা হলো। বিশ^নাথ থানার অলংকারি ইউপির অন্তরগত ছোটখুরমা সাকিনে পরিচয়হীন এক প্রতিবন্ধী মহিলা পাওয়া গিয়াছে। সে তার নাম মুমিনা বলে জানায়। আর কোন কিছু বলতে পারেনা। কেউ কোন পরচিয় জানলে বিশ^নাথ থানায় যোগাযোগ করার জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে। মোবাইল- ০১৩২০-১১৭৮৩৮ ও ০১৩২০-১১৭৮৪৪।