একাত্তরের কথা’র সম্পাদক ও প্রকাশকের বিরুদ্ধে আপত্তিকর বক্তব্যে বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবের নিন্দা

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: আলোচিত দৈনিক একাত্তরের কথা’য় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ২২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সালেহ আহমদ সেলিমকে নিয়ে সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে গত মঙ্গলবার (০১ ডিসেম্বর) নগরীর শাহজালাল উপশহরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ওই মানববন্ধনে এবং একটি ভিডিও রেকর্ড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করে একাত্তরের কথা’র সম্পাদক ও প্রকাশকের বিরুদ্ধে অশালীন-আপত্তিকর বক্তব্য প্রদান করা হয়েছে।
বুধবার বিকেলে বিশ^নাথ প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ এক বিবৃতিতে আপত্তিকর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, মানববন্ধন ও এক ভিডিও রেকর্ডে ব্যক্তিগত আক্রমণ করে সাংবাদিকদের চরিত্রহননের চেষ্টা করা হয়েছে। একাত্তরের কথা’র সম্পাদক ও প্রকাশকে জড়িয়ে অশ্লীল, আপত্তিকর ও অশোভন বক্তব্য সমীচীন নয়। যা মুক্ত সাংবাদিকতা ও সংবাদপত্রের স্বাধীনতার পরিপন্থি বলে মনে করেন তারা। এই অনাকাঙ্খিত আপত্তিকর বক্তব্য পরিহারের জন্যে সালেহ আহমদ সেলিমের প্রতি দাবী জানান বিশ^নাথ প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দ।
নিন্দা জ্ঞাপনকারীরা হলেন- প্রেসক্লাবের আহবায়ক আব্দুল আহাদ (সাপ্তাহিক ইউরো-বাংলা), যুগ্ন আহবায়ক এ এইচ এম ফিরোজ আলী (সম্পাদক, বিশ^নাথেরডাক টোয়েন্টিফোর ডটকম), মোসাদ্দিক হোসেন সাজুল (দ্যা ট্রাইব্যুনাল), সদস্য জাহাঙ্গীর আলম খায়ের (সমকাল), আশিক আলী (যুগান্তর), রুহেল উদ্দিন (গণমুক্তি), এমআর টুনু তালুকদার (আনন্দ টিভি), নবীন সোহেল (স্টাফ রিপোর্টার, শুভপ্রতিদিন), কামাল মুন্না (যায়যায়দিন), আক্তার আহমদ শাহেদ (মানবজমিন), শুকরান আহমদ রানা (সকালের সময়), মিছবাহ উদ্দিন (আমার সংবাদ), আব্দুস ছালাম (ইনকিলাব), বদরুল ইসলাম মহসিন (জৈন্তাবার্তা), মশাহিদ আলী (সিলেট প্রতিদিন)।