বর্ণবাদী হামলার ঘটনায় ফ্রান্সে তিন পুলিশ কর্মকর্তা বরখাস্ত

????????? ?????? ?????? ??????? ????????? ??? ????? ?????????

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক :: কৃষ্ণাঙ্গ এক যুবককে পেটানোর ঘটনায় তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করেছে ফ্রান্সের কর্তৃপক্ষ। শনিবার ওই ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনার ভিডিওতে দেখা যায়, প্যারিসে কৃষ্ণাঙ্গ একজন মিউজিক প্রোডিসারকে পেটাচ্ছেন ওই তিন পুলিশ কর্মকর্তা। এরপর ফ্রান্সের নিরাপত্তা বাহিনীর আচরণ নিয়ে নতুন করে সমালোচনার ঝড় ওঠে দেশটিতে।

সোমবার প্যারিসে অভিবাসীদের একটি অস্থায়ী ক্যাম্প উৎখাতের সময়ও পুলিশের বিরুদ্ধে অপ্রয়োজনীয় শক্তি প্রয়োগের অভিযোগ ওঠে। ফ্রান্স সরকার পুলিশ কর্মকর্তাদের চেহারা সম্প্রচার নিষিদ্ধ করতে আইন আনতে যাচ্ছে। এর আগে এ ধরনের ঘটনা ঘটলো। এই আইনের সমালোচকরা বলছেন, যদি পুলিশ কর্মকর্তাদের চেহারা প্রকাশ না করা হতো তাহলে গত সপ্তাহের ঘটনাগুলো সামনে আসতো না।

পুলিশের এমন কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ জানিয়েছেন ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী ফুটবল তারকা কিলিয়ান এমবাপেও। বৃহস্পতিবার ওই প্রযোজকের রক্ত মাখা চেহারার একটি ছবি দিয়ে করা এক টুইট বার্তায় এমবাপে বলেন, অসহনীয় ভিডিও, অগ্রহণযোগ্য সহিংসতা। বর্ণবাদকে না বলুন।

বৃহস্পতিবার ওই ঘটনার একটি ভিডিও প্রকাশ করে অনলাইন নিউজ সাইট লুপসাইডার। সেখানে দেখা যায়, মাইকেল নামের কৃষ্ণাঙ্গ সংগীত প্রযোজক নিজের স্টুডিও’র ভেতর প্রবেশের পর তাকে লাথি, ঘুষি দিচ্ছে এবং হাতে থাকা লাঠি দিয়ে পেটাচ্ছে ওই তিন পুলিশ কর্মকর্তা।

লুপসাইডার বলছে, মাস্ক না পরায় প্রাথমিকভাবে মাইকেলকে থামানো হয়েছিল। মাইকেল বলেছেন, পাঁচ মিনিট ধরে চলা এই তাণ্ডবের সময় বর্ণবাদী দুর্ব্যবহারেরও শিকার হন। সহিংসতা এবং গ্রেপ্তারে বাধা দেয়ার অভিযোগে তাকে আটকও করা হয়। তবে সরকারি কৌঁসুলিরা মাইকেলের সব অভিযোগ খারিজ করে দিয়ে উল্টো ওই তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে।

সুত্র : বিবিসি, লুপসাইডার