মাটি নেই ব্রিজের গোড়ায়

বোগলাবাজার-পশ্চিম বাংলাবাজার সড়ক
মো. আলা উদ্দিন, দোয়ারাবাজার :: দোয়ারাবাজারের বোগলাবাজার-পশ্চিম বাংলাবাজার সড়কের বাঘমারা এলাকার গোলাপের বাড়ির পাশের ব্রিজটির গোড়া থেকে মাটি সরে গেছে। ব্রিজের এপ্রোজে মাটি না থাকায় জনসাধারণের যাতায়াতে মারাত্মক সমস্যা দেখা দিয়েছে। যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী।
দীর্ঘদিন ধরে ব্রিজের গোড়ায় ও প্রায় চার কিলোমিটার সড়কের মাটি না থাকায় যাতায়াত ও পণ্য পরিবহনে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন ৩টি ইউনিয়নের প্রায় ১৫টি গ্রামের মানুষ। ব্রিজ এবং সড়কটি ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী হওয়ায় ডিজিটাল যুগেও উন্নয়নের ছোঁয়া মেলেনি।
প্রতিদিন অন্তত ১৫টি গ্রামের মানুষ মাটির কাঁচা সড়ক ও ব্রিজ দিয়ে যাতায়াত করে থাকেন। বিশেষ করে বোগলা রোসমত আলী-রামসুন্দর স্কুল এন্ড কলেজ, কাঁঠালবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় বিদ্যালয়, বক্তারপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পেস্কারগাও দাখিল মাদ্রাসা ও অফিস আদালতসহ বিভিন্ন জায়গার কলেজের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতসহ মালবাহী গাড়ি ব্রিজে উঠতে ও নামতে চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে।
একটু বৃষ্টি হলেই ব্রিজের গোড়া থেকে মাটির সড়কে হাঁটু পানি, কাদা জমে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয়। কাদায় পোশাক নষ্ট হয়ে যায়। তাই অতিদ্রুত এ ব্রিজসহ সংলগ্ন সড়কের মাটি ভরাট করা না হলে দিনদিন জনসাধারণের দুর্ভোগ ও ভোগান্তি চরমে পৌঁছাবে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।
জানা গেছে, এডিপির অর্থায়নে ১৯৯৪-১৯৯৫ অর্থ বৎসরের উপজেলা পরিষদ (এলজিইডি) বাস্তবায়নে দোয়ারাবাজার উপজেলার বোগলাবাজার ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বোগলাবাজার-পশ্চিম বাংলাবাজার সংযোগ সড়ক এলাকায় বাঘমারা নরখাই খালের উপর গোলাপের বাড়ির নিকট নির্মিত ব্রিজটি প্রায় ২২ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়। ওই ব্রিজ দিয়ে প্রতিদিন ৫ থেকে ৬ হাজার মানুষ যাতায়াত করে থাকেন। বিগত বন্যা এবং অতি বৃষ্টির কারণে ব্রিজটির দুই পাশের মাটি ধ্বসে যায়। এছাড়া এ সংযোগ সড়কের প্রায় ৫ কি.মি. রাস্তা দীর্ঘদিনেও মেরামত না করায় ১৫টি গ্রামের জনগণকে যাতায়াতের ক্ষেত্রে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
বাঘমারা এলাকার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী জানান, আমরা এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে মৌখিকভাবে অনেকবার বলেছি কিন্তু তারা পরিষদের তহবিলে অর্থ না থাকায় কিছু করতে পারবেন না বলে অপারগতা প্রকাশ করেছেন। এবং তারা কোনো ব্যবস্থা নেই নি। আমরা এ দুর্ভোগের পরিত্রাণ চাই। বাঘমারা গ্রামের সমাজসেবক বেলায়েত হোসেন বলেন, খুবই দ্রুত রাস্তা ব্রিজের উন্নয়ন করা জরুরি। ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. জসিম মিয়া জানান, এসড়কটি গূরুত্বপূর্ণ খুব দ্রুত ব্রিজের এপ্রোজে ও রাস্তা সংস্কারকাজ করতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।
বোগলাবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম জুয়েল বলেন, বাঘমারা এলাকায় ব্রিজের গোড়ার মাটি ও সড়কটি সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ওই এলাকার জনগণের পণ্য পরিবহন ও চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। সড়কটি দ্রুত মেরামত করা প্রয়োজন। দোয়ারাবাজার-হরিণাপাঠি ভায়া বোগলাবাজার পশ্চিম বাংলাবাজার রাস্তাটি পাকাকরণ করার দাবি জানাচ্ছি।