ইথিওপিয়ায় যুদ্ধাপরাধের আশঙ্কা জাতিসংঘের

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক :: ইথিওপিয়ার স্বাধীনতাকামী উত্তরাঞ্চলীয় টাইগ্রে অঞ্চলের রাজধানী মেকেল্লেতে দেশটির সেনাবাহিনী অভিযানের হুমকি দেয়ায় সেখানে সম্ভাব্য যুদ্ধাপরাধের আশঙ্কা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। সংস্থার মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল ব্যাচেলেট শহরটির আশেপাশে ট্যাংক ও গোলাবারুদ মোতায়েনের খবরকে উদ্বেগজনক বলেছেন।

ইথিওপিয়ার সরকারি বাহিনী ও স্বাধীনতাকামী টাইগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট পার্টির (টিপিএলএফ) মধ্যে গত দুই সপ্তাহ ধরেই লড়াই চলছে। এরইমধ্যে এই অঞ্চলে দুই পক্ষের লড়াইয়ে এক হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এছাড়া অঞ্চলটি থেকে পালিয়ে প্রতিবেশী দেশ সুদানে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় নিয়েছে হাজার হাজার মানুষ।

রোববার রাতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ টিপিএলএফ বাহিনীকে আত্মসমর্পণ করতে তিন দিনের সময় বেঁধে দেন। তবে আত্মসমর্পণ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠীটির নেতা ডেবরেটসিয়ন গেবরেমাইকেল। জবাবে এই নেতা বলেন, তাদের জনগণ মাতৃভূমি রক্ষায় জীবন দিতে প্রস্তুত।

মিশেল ব্যাচেলেট বলেছেন, মেকেল্লেকে নিয়ে যুদ্ধের জন্য উভয় পক্ষের আক্রমণাত্মক বক্তব্য খুবই বিপদজনক। এই বক্তব্য শহরটির বাসিন্দাদের বিপদের ঝুঁকি আরও বাড়াবে বলে সতর্ক করেন তিনি। এছাড়া সেখানে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘনের পাশাপাশি যুদ্ধাপরাধ ঘটার আশঙ্কা রয়েছে বলেও জানান তিনি।
সুত্র : আল জাজিরা