নগরীতে ছিনতাই : শিকার প্রবাসী যুবলীগ সভাপতি, নেতৃত্বে ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি

স্টাফ রিপোর্ট :: সিলেট নগরীর মানিকপীর রোডে ছিনতাইয়ের শিকার হয়েছেন এক প্রবাসী। রাজেল তালুকদার নামের ওই প্রবাসী যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান স্টেট যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি। তিনি দক্ষিণ সুনামগঞ্জের ডুংরিয়া গ্রামের বাসিন্দা। যিনি ছিনতাইয়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে তিনি সিলেট নগরীর ১৬ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি সেবুল আহমদ সাগর। সোমবার সন্ধ্যায় নগরীর কুমারপাড়ায় এ ঘটনাটি ঘটে।

ছিনতাইকারীরা রাজেল তালুকদারের কাছ থেকে নগদ ১ লাখ টাকা, ২টি স্মার্ট ফোন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ছিনতাইকারীরা এ সময় তাকে ব্যাপক মারধরও করে। পরে আহতবস্থায় রাজেল তালুকদারকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সূত্র জানায়, প্রবাসী রাজেল তালুকদার নিজের পানচিনি (বাগদান) অনুষ্ঠানের বাজার করতে সুনামগঞ্জ থেকে সোমবার সিলেটে আসেন। নগরীর জিন্দাবাজার থেকে কেনাকাটার পর সন্ধ্যার দিকে একটি সিএনজি অটোরিকশা নিয়ে আরও কেনাকাটার জন্য কুমারপাড়া এলাকায় যাচ্ছিলেন। তাকে বহনকারী সিএনজি অটোরিকশাটি মানিকপীরস্থ মালঞ্চ কমিউনিটি সেন্টারের সামনে আসামাত্রই ৬-৮জন যুবক সিএনজি অটোরিকশা গতিরোধ করে। এসময় কয়েকজন ছিনতাইকারী সিএনজি অটোরিকশার ভেতরে উঠে আর অন্যরা পাহারা দেয়। এ সময় রাজেল তালুকদারের কাছ থেকে টাকা ও ফোন ছিনিয়ে নিতে চাইলে তিনি বাধা দেন। এ সময় ছিনতাইকারীরা তাকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মাথায় আঘাত করে। স্থানীয়রা ছিনতাইয়ের বিষয়টি বুঝতে পেরে এগিয়ে এলে ছিনতাইকারীরা নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে কোতোয়ালি থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মানিকপীর কবরস্থানের বিপরীত দিকের একটি ভবনের সামনে আওয়ামী লীগ-যুবলীগের নেতাকর্মীরা প্রতিদিন আড্ডা দেন। এই চক্রেরই কয়েকজন সদস্য প্রবাসীকে মারধর করে নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনতাই করেছে। এরমধ্যে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট সিলেটের সাধারণ সম্পাদক ও ১৬নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি সেবুল আহমদ সাগর, সৈয়দ সাব্বির, হেতিমগঞ্জের কায়স্থগ্রামের রুহিন আহমদ, তার সহযোগী মামুন, মাহবুব, ইব্রাহিম খলিল, তালহা ও মাহফুজসহ কয়েকজনকে চিনতে পারেন স্থানীয়রা। আর অন্যরা তাদের সহযোগী।

ছিনতাইয়ের শিকার রাজেল তালুকদারের আত্মীয় জুবায়ের আহমদ বলেন, ছিনতাইকারীরা রাজেলের কাছ থেকে নগদ ১ লাখ টাকা ও প্রায় আড়াই লাখ টাকা মূল্যের দুটি মোবাইল সেটি নিয়ে পালিয়ে যায় ছিনতাইকারীরা। এসময় ছিনতাইকারীরা তাকে মারধর করে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন ছিনতাইকারীদের মধ্যে সেবুল তালুকদার সাগর, সাব্বিরসহ কয়েকজন ছিলেন।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করেন প্রবাসী রাজেল তালুকদারের চাচা দক্ষিণ সুনামগঞ্জের জেলা পরিষদের সদস্য জহিরুল ইসলাম।
এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানার ওসি সেলিম মিঞা বলেন, পুলিশ বিষয়টি গুরুত্বসহকারে খতিয়ে দেখতেছে। এখনও পুলিশ পরিষ্কার না কি ঘটেছে।