শামীমাকে নিয়ে আবার ঘর করতে চান জঙ্গি স্বামী

ডেস্ক রিপোর্ট :: সিরিয়ায় গিয়ে আইএস-বধূ হয়েছিলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ স্কুলছাত্রী শামীমা বেগম। তারপর অনেকটা দেশহীনই হয়ে পড়েন শামীমা। বর্তমানে সিরিয়ায় অবস্থানকারী এই শামীমাকে নিয়ে আবারও সংসার করতে চান তার জঙ্গি স্বামী ইয়াগো রিডজিক। সম্প্রতি একটি ডকুমেন্টারিতে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এমনটি জানান। বর্তমানে সিরিয়ার একটি কারাগারে বন্দি আছেন নেদারল্যান্ডের নাগরিক রিডজিক।
ব্রিটিশ ডকুমেন্টরি নির্মাতা অ্যালান ডানকানকে দেওয়া ওই সাক্ষাতকারে রিডজিক বলেন, ‘আমার স্ত্রীর সঙ্গে যে কোনো জায়গাই হবে আমার বাড়ি। আমি চাই, আবার সংসার শুরু করতে।
২০১৫ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি পূর্ব লন্ডনের ব্যাথনালগ্রিন এলাকার বাসিন্দা কিশোরী শামীমা বেগম লন্ডনের গেটউইক এয়ারপোর্ট দিয়ে তুরস্ক হয়ে সিরিয়ায় আইএসে যোগ দেন। পরে ইয়াগো রিডজিক নামক ওই আইএস জঙ্গিকে বিয়ে করেন। ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে সিরিয়ার ক্যাম্পে মানবেতর জীবনযাপনে শামীমার এক বছর বয়সী কন্যা ও তিন মাসের পুত্র সন্তান মারা যায়।
এই মানবেতর জীবন থেকে মুক্তির জন্য ব্রিটেনে ফিরে আসার ইচ্ছা প্রকাশ করেন শামীমা। যুক্তরাজ্যে ফেরার জন্য তিনি এখন ব্রিটিশ আদালতে আইনি লড়াই করছেন। এ মাসে যুক্তরাজ্যে শামীমার নাগরিকত্ব মামলার শুনানি হওয়ার কথা। শামীমার পৈত্রিক নিবাস সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে হলেও বাংলাদেশ শামীমাকে আশ্রয় দিতে রাজি নয়।