থানায় অনিয়মগুলো নিজ অফিসে বসেই দেখবেন এসপি

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :: আপনি কোনো সমস্যার প্রতিকার পেতে থানায় গেলেন। কিন্তু কেউ কথা শুনছে না। ঘন্টার পর ঘন্টা বসে আছেন, পাচ্ছেন না কাঙ্খিত সেবা। কিংবা সেবার বিনিময়ে ঘুষ চাওয়া হচ্ছে। হতে হচ্ছে হয়রানির শিকারও। থানায় এসব অনিয়ম-দুর্নীতি ও হয়রানি এখন অফিস থেকে দেখবেন এসপি।
এমন উদ্যোগ নিয়েছেন মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার (এসপি) ফারুক আহমেদ। থানা ও বিভিন্ন পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে কোনো অনিয়ম, হয়রানি, দুর্নীতি বা অবৈধ টাকা লেনদেনের ঘটনা ঘটলেই সাথে সাথে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
সেজন্য জেলার ৭টি থানা এবং তদন্ত কেন্দ্রে স্থাপন করা হয়েছে আইপি ক্যামেরা।
থানার ডিউটি অফিসার, মুন্সিখানা (জুনিয়র সেরেস্তাদারের কক্ষ) এবং হাজতখানায়ও স্থাপন করা হয়েছে সিসি ক্যামেরা।
রোববার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে ‘ডিজিটাল আই’ শীর্ষক কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন এসপি ফারুক আহমেদ। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসান মোহাম্মদ নাছের রিকাবদার ও জিয়াউর রহমান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান, মৌলভীবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইয়াছিনুল হক, ডিআইও-১ মোহাম্মদ আবু তাহের এবং পুলিশ পরিদর্শকসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসপি ফারুক আহমেদ বলেন, জনগণের সেবা নিশ্চিত করতে এবং থানায় দুর্নীতি-হয়রানি কমাতেই এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। জেলা পুলিশকে আরো গতিশীল ও দুর্নীতিমুক্ত রাখতে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন কর্মস‚চী গ্রহণ করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় সকল থানা ও বিভিন্ন স্থাপনায় আইপি ক্যামেরা সংযোজন করা হয়েছে। যার মাধ্যমে পুলিশ প্রশাসনে স্বচ্ছ, দুর্নীতিমুক্ত ও জবাবদিহিতাম‚লক পুলিশিং নিশ্চিত করার মাধ্যমে সেবার মান আরও উন্নত ও গতিশীল করা হবে।