আজিজ আহমদ সেলিম স্মৃতি অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা

সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি, প্রবীণ সাংবাদিক আজিজ আহমদ সেলিম ছিলেন এক ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়াপ্রেমি মানুষ। সীমান্তিক-ইমজা তৃতীয় অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতাটি তাই উৎসর্গ করা হয়েছে তার স্মৃতির উদ্দেশ্যে। ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েসন (ইমজা) সিলেটের আয়োজনে এবং বেসরকারি সংস্থা সীমান্তিকের সহযোগিতায় শুরু হয়েছে ‘আজিজ আহমদ সেলিম স্মৃতি অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা।’ রোববার দুপুরে জিন্দাবাজারস্থ ইমজা কার্যালয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সংক্ষিপ্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইমজার সভাপতি মাহবুবুর রহমান রিপন। সাধারণ সম্পাদক সজল ছত্রীর সঞ্চালনায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- সিনিয়র সাংবাদিক আব্দুর রশীদ রেনু, সীমান্তিকের মহাসচিব ও সিলেট জেলা পরিষদ সদস্য শামীম আহমদ, সীমান্তিকের সহকারি নির্বাহি পরিচালক কাজী হুমায়ুন কবির। অনুষ্ঠানের শুরুতেই ইমজার জীবন সদস্য ও সবার প্রিয় সহকর্মী আজিজ আহমদ সেলিমের রুহের মাফগেরাত কামনা করে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। ভারাক্রান্ত মনে আজিজ আহমদ সেলিমের স্মৃতিচারণ করেন ইমজার সাবেক সভাপতি আশরাফুল কবির এবং সহ সভাপতি আনিস রহমান। অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার সার্বিক বিষয় নিয়ে বক্তব্য দেন ক্রীড়া কমিটির আহবায়ক বাপ্পা ঘোষ চৌধুরী ও সদস্য সচিব মারুফ আহমদ। বক্তব্যে সীমান্তিকের মহাসচিব শামীম আহমদ বলেন, সীমান্তিক দেশের স্বাস্থ্য ও শিক্ষাখাতকে এগিয়ে নিতে কাজ করে যাচ্ছে। সরকারি প্রচেষ্টার বাইরে বৃহৎ আকারে আপামর মানুষের স্বাস্থ্যসেবা ও শিক্ষা অধিকার নিশ্চিতে সীমান্তিকের সকল সদস্য একনিষ্ঠভাবে নিয়োজিত। এছাড়া সামাজিক দায়িত্বশীলতার অংশ হিসেবে সকল ইতিবাচক কর্মকান্ডে অংশ নিতে সচেষ্ট রয়েছে সংস্থাটি। তারই অংশ হিসেবে বিগত তিন বছর ধরে ইমজার অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার স্পন্সর করছে ইমজা। করোনার সংকটকালেও সবরকম স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে সক্রিয় ছিল সীমান্তিক। আগামীতেও সকল সংকটে সম্মুখসারির যোদ্ধা এবং সকল ভালো কাজে সহযোগি হিসেবে সীমান্তিক কাজ করে যাবে। সীমান্তিকের সহকারি নির্বাহি পরিচালক কাজী হুমায়ুন কবির ইমজার ঐক্যের প্রশংসা করে বলেন, প্রয়াত একজন সিনিয়র সহকর্মীকে প্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে ইমজা অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। আজিজ আহমদ সেলিম ছিলেন সত্যিকারের একজন বিনয়ি ও সমাজ সচেতন মানুষ। ইমজার সাথে সীমান্তিকের বন্ধন যুগ যুগ ধরে চলবে বলে প্রত্যাশা করেন তিনি। সভাপতির বক্তব্যে মাহবুবুর রহমান রিপন সীমান্তিকের প্রধান উদ্যোক্ত ড. আহমদ আল কবির সহ অতিথি এবং উপস্থিত সকল সদস্যকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আজিজ আহমদ সেলিমের শূন্যতা সহজে পূরণ হবার নয়। আমাদের সকলের পক্ষ থেকে তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা জানানোর জন্য এই সামান্য আয়োজন। উদ্বোধনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ক্যারম খেলার মধ্য দিয়ে শুরু হয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতা। -প্রেসরিলিজ