পাঠানটুলায় প্রেমিকার সাথে অভিমান করে প্রেমিকের আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্ট ::  সিলেটের পাঠানটুলা থেকে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ।

তার নাম মিফতাহুর রহমান (৩৫)। তিনি সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের কদমতলি গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে।

আজ শনিবার সকাল ১১ টার দিকে পাঠানটুলার নিকুঞ্জ আবাসিক এলাকা থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়।

মিফতার চাচা মুহিবুর রহমান  জানান, তাদের ধারণা কেউ মিফতাকে ফাঁস দিয়ে মেরে ফেলেছে। পরে লাশটি নামিয়ে রাখে। এমন ধারনার কারণ, তারা  ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে দিকে মেঝেতে লাশ পড়ে  থাকতে দেখেছেন।

তিনি জানান, ঘটনাস্থলে এক তরুণীকে পাওয়া গেছে। সে জানিয়েছে তাদের জানিয়েছে যে, মিফতার সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। বিয়ে হয়েছিল কি-না সে ব্যাপারে কিছু বলেনি মেয়েটি। তার বাড়ি  বাগেরহাটের ফকিরহাটে।

এ ব্যাপারে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) কোতোয়ালী থানার ওসি মো. সেলিম মিঞা বলেন, আমরা লাশ উদ্ধার করেছি। ঘটনাস্থলে থাকা এক তরুণীকেও আটক করা হয়েছে।  মেয়েটি তার মায়ের সাথে সিলেটে এসেছিল।  শুক্রবার রাতে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়েছিল। পরে দু’জন দুই রুমে চলে যায়। মেয়েটি ব্লেড দিয়ে তার হাত কাটছিলো। আর ছেলেটি গলায় ফাঁস দেয়- বলে জানিয়েছে তরুণী। এরপর তরুণী দ্রুত এসে ছেলেটিকে নামিয়ে ফেলে।

পুলিশ লাশ নামানো অবস্থায় পেয়েছে বলেও উল্লেখ করেনে সেলিম মিঞা।

আত্মহত্যার প্ররোচণার অভিযোগে তরুণীকে আসামি করে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।