ফেসবুক পোস্টে প্রতি ১০ হাজারে ১১টি বিদ্বেষমূলক!

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক :: বিদ্বেষমূলক পোস্টের তথ্য প্রকাশ করেছে ফেসবুক। এতে দেখা যায়, সামাজিক এ মাধ্যমটিতে পোস্ট করা প্রতি ১০ হাজার কন্টেন্টের মধ্যে ১০-১১ টিতে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য রয়েছে। এ তথ্য জানিয়েছে ফেসবুকের নিরাপত্তা এবং সার্বভৌমত্ব রক্ষার দায়িত্বে থাকা গাই রসেন।
গাই রাইসেন দাবি করেন, গত তিন মাসে এই ধরনের ২ কোটি ২১ লাখ কন্টেন্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে ফেসবুক। তার মধ্যে কোনো কন্টেন্ট সরিয়ে দেওয়া হয়েছে, কোনো ক্ষেত্রে সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে, আবার কোনোটিতে অ্যাকাউন্ট বন্ধও করে দেয়া হয়েছে।
বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বারবারই ফেসবুকের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে মানবাধিকার সংগঠনগুলো। বিভিন্ন সংস্থার চাপের মুখে এ ধরনের কন্টেন্টগুলোর সংখ্যা প্রকাশের পথে হাঁটে মার্ক জাকারবার্গের সংস্থা।
বৃহস্পতিবার ফেসবুক তাদের হালনাগাদ ট্রান্সপারেন্সি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তাতে আরও বলা হয়েছে বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশের সরকারের পক্ষ থেকে ফেসবুকের কাছে তথ্য চাওয়ার হার বেড়ে গেছে। চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে ফেসবুকের কাছে অনুরোধ করা হয় ১ লাখ ৪০ হাজার ৮৭৫টি। সবচেয়ে বেশি অনুরোধ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এরপরের অবস্থানে রয়েছে ভারত, জার্মানি, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্য।
ফেসবুকের তথ্যানুযায়ী, ফেসবুকের কাছে বাংলাদেশ সরকারের তথ্য চাওয়ার হার বাড়ছে। এবছর ৩৭১টি ইউজার আইডি বা অ্যাকাউন্ট সম্পর্কিত তথ্য চেয়েছে বাংলাদেশ। এরমধ্যে ২৪১টি আইডির ৪৪ শতাংশ তথ্য দিয়েছে ফেসবুক। ১৪২টি আইনি প্রক্রিয়ায় অনুরোধ এবং ৯৯টি জরুরি তথ্য প্রদানের অনুরোধ ছিলো। গত বছরের শেষ ছয় মাসে ফেসবুকের কাছে ১৭৯টি অনুরোধ করেছিল বাংলাদেশ সরকার। ফেসবুক ৪৫ শতাংশ ক্ষেত্রে তাতে সাড়া দিয়েছিল। ফেসবুকের প্রতিবেদন প্রকাশের পর থেকে এবারই সবচেয়ে বেশি অনুরোধ করা হয়েছে।
সুত্র : দ্যা ভার্জের, ফেসবুকের ট্রান্সপারেন্সি প্রতিবেদন