সিলেটের কয়েকটি এলাকায় ৫টার পর আসতে পারে বিদ্যুৎ

স্টাফ রিপোর্ট :: সিলেট মহানগরী কয়েকটি এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিকের জোর চেষ্টা চলছে। এজন্য কর্তৃপক্ষ ‘টেস্ট রান’ ও করছে।

বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টায় জানা গেছে, কুমারগাঁও গ্রিড সাব স্টেশনের বাসবার মেরামত কাজ শেষ। তাই ৫টার আগে ‘টেস্ট রান’ করা হবে এবং এতে ত্রুটি ধরা না পড়লে ৫ টার পর ডিভিশন ১ ও ২ এর অন্তভুক্ত এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্ভব হবে।

দুপুর ২টার দিকে গাজীপুর থেকে পাওয়ার ট্রান্সফরমার আসে সিলেটে। এটি বসানোর পর সিলেট মহানগরীর সম্পূর্ণ এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ করা সম্ভব হতে পারে বলে জানিয়েছে নির্ভরযোগ্য সূত্র।

দুটি পাওয়ার ট্রান্সফরমার-এর জায়গায় একটি দিয়ে আপাতত বিদ্যুৎ চালু করার চেষ্টা করছে পিডিবি। ফলে আপাতত কম লোড ভাগ করে বিভিন্ন ফিডারে দেয়া হবে।

তাই বিদ্যুৎ আসার সাথে সাথে সবাই একসঙ্গে ফ্রিজ, মটরসহ ভারি ইলেকট্রনিক সামগ্রী চালু না করার আহবান জানিয়েছেন পিডিবির প্রধান প্রকৌশলী খন্দকার মোকাম্মেল হোসেন।

তা না হলে ওভার হিটেড হয়ে ফের বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার আশঙ্কাও প্রকাশ করেছেন তিনি।

উল্লেখ্য, বুধবার দুপুরে পিডিবির সংশ্লিষ্ট দায়িত্বশীলরা আশাবাদ ব্যক্ত করে জানিয়েছেন, আজ বিকেলের দিকে ডিভিশন ১ ও ২-এর আওতাধীন এলাকাগুলোতে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হতে পারে। এলাকাগুলো হচ্ছে, চৌহাট্টা, জিন্দাবাজার, আলিয়া মাদরাসা, রিকাবিবাজার, লামাবাজার, আম্বরখনা, কাজলশাহ, ওসমানী মেডিকেল, তালতলা, কাজিরবাজার, বন্দবাজার, উপশহর, শিবগঞ্জ, টিলাগড়, রায়নগর, এসমসি কলেজ এলাকা, মির্জাজাঙ্গাল, শাহী ঈদগাহ, হাউজিং এস্টেট, মহাজনপিট্ট, মুরাদপুর, আখালিয়া, মদিনা মার্কেট, বাগবাড়ি, শেখঘাট ইত্যাদি।