এক দিনের মৌসুমী ব্যবসা

স্টাফ রিপোর্ট :: সিলেটের আখালিয়ার কুমারগাঁও বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে আগুন লাগার পর বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ায় পাল্টে গিয়েছিলো সিলেটের স্বাভাবিক চিত্র। বিদ্যুতের সাথে দৈনন্দিন জীবনের সবকিছু জড়িয়ে পড়ায় বিদ্যুতের অভাবে থমকে গিয়েছিলো সবকিছুই। সবচেয়ে বেশি ভুগতে হয়েছে পানির সংকটের কারণে। তবে এ বিপর্যয়ও কারো জন্য দু’ পয়সা আয়ের সুযোগ হয়ে ধরা দিয়েছে। অনেকেই নেমে পড়েন মৌসুমী ব্যবসায়।
বুধবার দিনভর নগরজুড়ে পানির ব্যবসা করতে দেখা অনেককেই। বাসায় বাসায় ড্রামে করে পানি পৌঁছে দিয়ে টাকা আয় করেছেন অনেকেই। স্বাভাবিক সময়ে প্রতি ড্রাম পানি ১০ টাকা করে হলেও এখন সংকটের সময়ে ২৫ টাকা করে পৌঁছে দিচ্ছেন বাসায় বাসায়। এর আগের রাতে মোমবাতি বিক্রি করেও অনেক ব্যবসায়ী পকে বাড়তি কিছু টাকা পুরে নিয়েছেন। বিদ্যুৎ না থাকায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মোমবাতি কেনা হিড়িক পড়েছিলো। সুযোগ বুঝে দোকানিরা দাম বাড়িয়ে দিয়েছিলেন মোমবাতির। পাঁচ টাকার মোমবাতি কোথাও কোথাও দশ-বারো টাকাতেও বিক্রি হয়েছে।
জেনারেটর ভাড়া দিয়েও অনেকে এ সময় কামিয়ে নিয়েছেন বাড়তি কিছু টাকা। আর জেনারেটর ভাড়া নিয়ে আরও অভিনব ব্যবসা করেছেন কেউ কেউ। তারা করেছেন মোবাইল ফোন চার্জের ব্যবসা। প্রতি ঘণ্টা মোবাইল ফোন চার্জের বিনিময়ে তারা ২০-২৫ টাকা করে নিয়েছেন। ভিড় ধরে অনেকেই মোবাইল ফোনে চার্জ করিয়েছেন তাদের কাছ থেকে।