হেফাজতের নতুন আমির বাবুনগরী


একাত্তর ডেস্ক :: হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নতুন আমির নির্বাচিত হয়েছেন জুনায়েদ বাবুনগরী। আর মহাসচিব হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন মাওলানা নুর হোসাইন কাসেমী। তিনি জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের মহাসচিব। রোববার দুপুর আড়াইটার দিকে হাটহাজারী মাদ্রাসায় (দারুল উলুম মইনুল ইসলাম) হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সম্মেলন শেষে এই ঘোষণা দেওয়া হয়। প্রয়াত আমির শাহ আহমদ শফীর অনুসারীদের বিরোধিতার মধ্যেই হেফাজতের এ নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করা হয়।
হেফাজতের নতুন আমির বাবুনগরী সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ইসলাম প্রতিষ্ঠা করার জন্য ইসলাম বিরোধী যত অপশক্তি আছে, যারা নবীর শানে কটূক্তি করবে তাদের নির্মূল ও কবর রচনা করার জন্য জন্য প্রয়োজনে রক্ত দিতে হবে। তিনি আরো বলেন, আমি আমিরের এই পদ চাইনি। মুরব্বিরা আমাকে আমির বানিয়েছেন। এই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালনের জন্য দোয়া করবেন।
সর্বমোট ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটির ঘোষণা দেন বেফাকের মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক। কমিটিতে প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে আছেন আগের কমিটির সিনিয়র নায়েবে আমির মহিবুল্লাহ বাবুনগরী।
নতুন কমিটিতে হেফাজতে ইসলামের প্রয়াত আমির আহমদ শফীর ছেলে আনাস মাদানি ও তার সমর্থকদের কেউ স্থান পাননি।
প্রসঙ্গত, হেফাজতের আমির আহমদ শফীর মৃত্যুর পর আমিরের পদটি শূন্য হয়। এরপর তার উত্তরসূরী কে হবেন ও অন্যান্য পদে কারা আসবেন তা নির্ধারণে সংগঠনটি গঠিত হওয়ার দীর্ঘ ৮ বছর পর কেন্দ্রীয় সম্মেলনে বসে সংগঠনটি। তবে এই কাউন্সিলের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে ও বাতিলের দাবিতে শনিবার চট্টগ্রামে আহমদ শফীর শ্যালক মোহাম্মদ মঈনউদ্দিন ও ঢাকায় মুফতি ফয়জুল্লাহ পৃথক সংবাদ সম্মেলন করেন।