জেলে আমার বাথরুমেও ক্যামেরা বসানো হয়েছিল : মরিয়ম

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক :: পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম নওয়াজ শরিফ অভিযোগ করেছেন, গতবছর তিনি যে জেলে ছিলেন সেখানে তার ঘরে এমনকি বাথরুমেও ক্যামেরা লাগানো হয়েছিল। সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে এ অভিযোগ করেছেন দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের মেয়ে।
এনডিটিভির খবর বলছে, গতবছর চৌধুরী সুগার মিলের দুর্নীতি মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর কারাগারে তাকে কী কী অসুবিধায় পড়তে হয়েছিল, সে সম্পর্কে সাক্ষাৎকারে বলেছেন মরিয়ম নওয়াজ শরিফ।
মরিয়ম বলেন, দুইবার আমাকে জেল খাটতে হয়েছে। একজন নারী হওয়া সত্তে¡ও কীভাবে জেলের ভেতরে আমার সঙ্গে আচরণ করা হয়েছে, সে বিষয়ে যদি বলা শুরু করি, তাহলে তারা মুখ দেখাতে পারবেন না। তার এই অভিযোগ পাকিস্তানের তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সরকারের ওপর।
নিজের উদাহরণ টেনে মরিয়ম বলেন, যেভাবে আমার সঙ্গে আচরণ করা হয়েছে, তাতে বোঝা যাচ্ছে, এ দেশের নারীরা কতটা নিরাপদ। এসময় ‘ভাববেন না নারীরা দুর্বল, তা সে পাকিস্তান হোক বা বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে’ বলে হুঁশিয়ারি দেন মরিয়ম শরিফ।
মরিয়ম বলেন, পাকিস্তানি প্রশাসন যদি জোর করে ঘরে ঢুকে বাবার সামনে আমাকে গ্রেফতার করতে পারে, তাহলে তারা আরও অনেককিছু করতে পারে। এটা প্রমাণ করে দেশের নারীরা কতটা নিরাপদ, তাদের অবস্থা কেমন।
মরিয়ম শরিফ বলেন, আমার দল গঠনতন্ত্রের পরিপ্রেক্ষিতে সামরিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার জন্য প্রস্তুত। তবে শর্ত থাকে পিটিআই সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেওয়ার। এছাড়া গোপনে কিছু করা যাবে না।