জগন্নাথপুরে তরুণের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় মুঠোফোনে পরিচয়ের সূত্র ধরে প্রেমের পর বিয়ের প্রলোভনে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক তরুণের বিরুদ্ধে। তরুণীর করা অভিযোগে ওই তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। গ্রেপ্তার তরুণ উপজেলার শেরপুর গ্রামের কমরু মিয়ার ছেলে সেলিবুর রহমান (২৫)। জগন্নাথপুর থানা পুলিশ জানায়, উপজেলার শেরপুর গ্রামের কমরু মিয়ার ছেলে সেলিবুর রহমান ২০১৭ সালে উপজেলার ২০ বছরের এক তরুণীর সাথে মুঠোফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেন। চলতি বছরের ২০ এপ্রিল সিলেট আদালতে নোটারীর মাধ্যমে বিয়ের প্রলোভনে দেখিয়ে নিয়ে গিয়ে সিলেট টুকেরবাজার এলাকায় এক আত্মীয়ের বাসায় রাত্রিযাপন করে তরুণীকে ধর্ষণ করে সেলিবুর। সর্বশেষ ১০ নভেম্বর তরুণীর বাড়িতে গিয়ে তাকে আবারো ধর্ষণের চেষ্টা করলে তরুণী চিৎকার দিলে সে পালিয়ে যায়। বিষয়টি তরুণী পরিবারের লোকজনকে জানায়। জগন্নাথপুর থানার উপ পরিদর্শক রাজিব রহমান জানান, তরুণীর দায়ের করা মামলার প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত সেলিবুরকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়।