আকবরকে র‌্যাবের কাছে দেয়ার দাবি রায়হানের স্ত্রীর

স্টাফ রিপোর্ট :: ভারতে পালিয়ে গিয়ে খাসিয়াদের হাতে আটক হওয়া এস আই আকবর হোসেন ভূঁইয়াকে দেশে ফেরত পাঠানো ও পুলিশের হাতে তুলে গ্রেপ্তার হওয়ার খবর শুনে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন রায়হানের মা সালমা বেগম ও স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নি। আকবরকে গ্রেপ্তারের পর সোমবার বিকেলে এক প্রতিক্রিয়ায় তারা এসব কথা বলেন।

রায়হানের মা সালমা বেগম বলেন, ছেলে হারানো কত কষ্টকর একমাত্র মা বলতে পারবে। আমার ছেলে রায়হানকে যেমন নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছিল এভাবে যেন আর কোনও মায়ের বুক খালি না হয়। তিনি তার ছেলে রায়হানের হত্যাকারী এস আই আকবরের বিচার দ্রুত শেষ করার দাবি জানান এবং এ জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এ সময় তিনি বলেন, আকবর পুলিশ নামের কলঙ্ক। সে একজন অপরাধী। আমার নিরপরাধ ছেলেকে টাকার লোভে হত্যা করার কারণেই সে পালিয়েছে। এতে তার অপরাধ প্রমাণিত। আমরা তার ফাঁসি চাই। সেই সাথে আকবর যাতে আর পালাতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখার অনুরোধ জানান তিনি। এছাড়াও আকবরের মত আর কোন পুলিশ সদস্যকে যেন চাকরি না দেয়া হয় সেদিকে খেয়াল রাখার জন্য পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ প্রধানমন্ত্রীর কাছে তিনি এই আহ্বান জানান।

সিলেট ওসমানী মেডিকেলের যেসব ডাক্তাররা প্রথমে বলেছিল আমার ছেলে গনপিঠুনিতে মারা গেছে তাদেরকেও বিচারের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। তা না হলে তারা আরও অপরাধ করবে।

রায়হানের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নি বলেন, স্বামীকে হারিয়ে একমাত্র মেয়েকে নিয়ে আমি অসহায়। তবে আকবর ধরা পড়ায় আমরা খুশি। আমরা চাই সঠিক বিচার হোক। তার এমন বিচার করা হোক যাতে করে আর কেউ যেন কোন অন্যায় করতে সাহস না পায়। এসময় তিনি বলেন, আমার স্বামীর হত্যাকারি আকবরকে র‌্যাবের কাছে হস্তান্তর করা হোক। সেই সাথে আকবরসহ সকল সহযোগীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন তিনি।