ইউ আর ফায়ার

হেলাল উদ্দীন রানা, যুক্তরাষ্ট্র থেকে :: বাইডেনের বিশাল বিজয়ে আমেরিকানরা নেচে গেয়ে উল্লাস প্রকাশ করছে। এই উচ্ছাস যেন থামছেনা। বাইডেনের বিজয়ের খবর প্রচারের সাথে সাথে বাঁধ ভাঙ্গা জোয়ারের মতো মানুষ রাস্তায় নেমে আসে। সবাই ফেটে পড়ে আনন্দ-উল্লাসে।
নিউইয়র্ক সিটি থেকে শিকাগো, লসএঞ্জেলেস থেকে ডেট্রয়েট, ফিলাডেলফিয়া থেকে উইলমিংটন সর্বত্র রাস্তায় রাস্তায় শুরু হয় বিজয় উদযাপন। ওয়াশিংটন হোয়াইট হাউসের চারিদিকে ঘিরে নামতে থাকে লাখো মানুষের ঢল। নিউইয়র্ক সিটির বিখ্যাত টাইমস স্কয়ারে জড়ো হয়ে মানুষ উৎসব শুরু করে। নানা ব্যানার ফেস্টুন আর শ্লোগান শ্লোগান মুখর হয়ে উঠে গোটা আমেরিকা। নানা শ্লোগান লেখা প্ল্যোকার্ডের পাশাপাশি প্রেসিডট ট্রাম্পক উদ্দেশ্য করে লেখা ইউ আর ফায়ার, এমন প্ল্যোকার্ড বহন করতে দেখা যায় অনেককে।
উইলমিংটন ডেলাওয়ারের চেইজসটারে স্থাপিত বাইডেনের নির্বাচনী মঞ্চ থেকে গতরাতে বাইডেন তাঁর বিজয়ী বক্তব্য দেন। তিনি ঐক্যবদ্ধ আমেরিকা গড়ার আহবান জানান। বাইডেন বলেন, আমি নীল বা লাল স্টেট দেখিনা, আমি বুঝি ইউনাইটড স্টেট অব আমেরিকা। সকল বিভদ বিভক্তি কাটিয়ে তিনি এক ঐক্যবদ্ধ আমেরিকার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি ট্রাম্পের নাম উল্লেখ না করে বলেন, পরাজয়ের মর্মবেদনা আমি বুঝি। আমিও জীবনে এই অবস্থার মুখামুখি হয়েছি।
তিনি বলেন, আসুন সব ভুলে পরিবর্তনের পথে সামনে এগিয়ে যাই। বাইডেন বলেন, জনগণ ৭৪ মিলিয়ন ভোটের মাধ্যমে তাঁদের বিশাল ম্যান্ডট দিয়েছে আমাদের। আগে কোন প্রেসিডেন্ট এতো বিশাল ভোটে নির্বাচিত হননি। বাইডেন বলেন, আমরা একে অন্যের প্রতিপক্ষ হতে পারি কিন্তু শত্রæ নই। যাঁরা আমাকে ভোট দিয়েছেন, আর যাঁরা দেননি আমি সকলের প্রেসিডেন্ট।
আমেরিকার অর্থনীতি, কোভিড-১৯, জলবায়ু, স্বাস্থ্য ও ইমিগ্রেশন ইত্যাদি বিষয়কে গুরুত্ব দিয়ে দায়িত্ব নিয়েই কাজ শুরু করবেন বলে সকলকে আশ্বস্ত করেন।
এর আগ প্রথমেই নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করে ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়া প্রথম মহিলা ও ভারতীয় বংশদ্ভূত কৃষাঙ্গ আমেরিকান কমলা হ্যারিস মঞ্চে উঠে তাঁদের নির্বাচিত করায় আমেরিকার জনগণকে ধন্যবাদ এবং অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, আমি মহিলা ও সংখ্যালঘু হিসাবে এই পদে প্রথম, কিন্তু শেষ নই। কমলা তাঁর বক্তৃতায় গভীর শ্রদ্ধার সাথে তাঁর মাকে স্মরণ করেন। যিনি ভারত থেকে এখানে এসে বসতি স্থাপন করেছিলেন।
বাইডেন ইলেক্টোরাল ভোটর হিসেবে ২৭৯ পেয়ে এগিয়ে রয়েছেন। জর্জিয়া রাজ্যর ফলাফল এখনও ঘোষণা হয়নি। এখানেও তিনি এগিয়ে।