নবীগঞ্জে বাল্য বিয়ের জন্য জরিমানা

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি :: নবীগঞ্জ উপজেলার বড় ভাকৈর (পশ্চিম) ইউনিয়নে এক বাল্য বিবাহের ঘটনায় বর পক্ষকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেছে উপজেলা প্রশাসন। শুক্রবার গভীর রাতে উপজেলার বড় ভাকৈর (পশ্চিম) ইউনিয়নের সোনাপুর গ্রামে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুমাইয়া মমিন অভিযান পরিচালনা করে বাল্য বিবাহ হওয়ায় এ জরিমানা করেন।
জানা যায়, উপজেলার বড় ভাকৈর (পশ্চিম) ইউনিয়নের সোনাপুর গ্রামে তন্নী দাসের(১৩) সাথে হৃদয় দাসের বাল্য বিবাহ হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুমাইয়া মমিন নেতৃত্বে নবীগঞ্জ থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছালে কনে, কনের পিতা-মাতা, বর, বরের পিতা মাতা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। প্রশাসন ঘটনাস্থলে পৌঁছার পূর্বেই বাল্য বিয়ে সম্পন্ন হয়ে যায়। পরে বরের দুলাভাই নেপাল দাসকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বাল্য-বিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ এর মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড (অনাদায়ে এক মাসের) কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন নবীগঞ্জ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নুসরাত ফেরদৌসী, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সত্যজিৎ দাশ।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমাইয়া মমিন বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছার পূর্বেই বিয়েটি সম্পন্ন হয়ে যায়, সেখানে কনে ও বর পক্ষের কাউকে পাওয়া যায়নি তারা পালিয়ে যায়। পরে বরের দুলাইভাইকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়। তিনি বলেন, মেয়ের ব্যাপারে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তাকে বলা হয়েছে।