নতুন সাজে সংসদ, আজ বিশেষ অধিবেশন

একাত্তর ডেস্ক :: আজ থেকে শুরু হচ্ছে জাতীয় সংসদের বিশেষ অধিবেশন। এটি একাদশ জাতীয় সংসদের দশম অধিবেশন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী (মুজিববর্ষ-২০২০) উপলক্ষে এই বিশেষ অধিবেশন আহ্বান করা হয়েছে। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সন্ধ্যা ৬টায় অধিবেশন শুরু হবে। অধিবেশনকে সামনে রেখে সংসদ ভবন জুড়ে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। করোনা পরিস্থিতির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নানা আয়োজন চলছে। নতুন সাজে সাজানো হয়েছে পুরো সংসদ ভবন এলাকা। সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, রোববার সংসদ অধিবেশন বসলেও মুজিববর্ষের বিশেষ কার্যক্রম সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ভাষণের মধ্য দিয়ে শুরু হবে। বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য ও কর্মময় রাজনৈতিক জীবন নিয়ে রাষ্ট্রপতির স্মারক বক্তৃতার পর তা নিয়ে আলোচনার জন্য একটি সাধারণপ্রস্তাব আনা হবে। ওইপ্রস্তাবের ওপর সরকার ও বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্যদের দীর্ঘ আলোচনা শেষে তা পাস হবে। করোনা পরিস্থিতির কারণে বিদেশি অতিথিরা না থাকলেও এই অধিবেশনকে স্মরণীয় করে রাখতে সব প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। বিশেষ এই অধিবেশনকে সামনে রেখে সংসদ ভবনের ভেতরে-বাইরে নানা ধরনের বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে। সংসদ ভবনের অধিবেশন কক্ষে স্পিকার যেখানে বসেন, তার পেছনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি টানানো হয়েছে। সংসদ ভবনের লেকে ভাসানো হয়েছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্য দৃষ্টিনন্দন দুটি নৌকা। দেশের স্বাধীনতা ও উন্নয়নেরপ্রতীক এই নৌকা তৈরি করেছে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন। সংসদ লাইব্রেরিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০০ বাণী নিয়ে আলো-ছায়ার দৃষ্টিনন্দন কোলাজ করা হয়েছে। অধিবেশনের প্রথম দিনে আইনপ্রণয়ন কার্যাবলীতে থাকবে তিনটি বিল উত্থাপন। মহিলা ও শিশুবিষয়কপ্রতিমন্ত্রী বেগম ফজিলাতুন নেসা ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধন) বিল-২০২০’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ‘মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ (সংশোধন) বিল-২০২০’ এবং শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি ‘বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড বিল-২০২০’ উত্থাপন করবেন। উত্থাপনের পর বিলগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হবে। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী জানান, করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় রেখে সতর্কতার সঙ্গে বিশেষ অধিবেশন বসবে। করোনা নেগেটিভ ব্যক্তিরাই বিশেষ অধিবেশনে প্রবেশ করতে পারবেন। অধিবেশনের বঙ্গবন্ধুর কর্মময় জীবনের উপর স্মারক বক্তৃতা ও সাধারণ আলোচনায় হবে। সংসদ সচিবালয় সূত্র জানিয়েছে, শোকপ্রস্তাব উত্থাপনের মধ্য দিয়ে দশম অধিবেশনেরপ্রথম দিনের কার্যক্রম শুরু হবে। এরপরপ্রশ্নোত্তর ও জরুরি জনগুরুত্বসম্পন্ন বিষয়ে মনোযোগ আকর্ষণীয় নোটিশ নিষ্পত্তি করা হবে। অধিবেশনে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন (সংশোধন) অধ্যাদেশ-২০২০’ সংসদে উত্থাপন করবেন। সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, আগামী ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত অধিবেশন চলার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে আগামী ৯ থেকে ১২ নভেম্বর বিশেষ কার্যক্রম চললেও বাকি দিনগুলো সাধারণ কার্যক্রম চলবে।