খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল উদ্ধার

প্রতীকী ছবি

তাহিরপুর প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বড়দল (দ.) ইউনিয়নের জামতলা বাজারে দরিদ্রদের জন্য সরকারের খাদ্যবান্ধব ডিলারের ঘর থেকে চুরি যাওয়া ১৫ বস্তা চালের মধ্যে ১৪৩ কেজি চাল উদ্ধার করেছে তাহিরপুর খাদ্যগোদাম থানা পুলিশ। উদ্ধার হওয়া চাল আটকের বিষয়ে কোন আইনানুগ ব্যবস্থা না করে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে একটি চক্র ।
বড়দল (দ.) ইউনিয়ন খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ডিলার হারুন মিয়া জানান, বৃহস্পতিবার ভোরে তার গোদাম জামতলা বাজার থেকে ১৫ বস্তা চাল চুরি হয়। বিষয়টি তিনি জানতে পেরে উপজেলা খাদ্য গোদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মফিজুর রহমানকে অবগত করেন। পরে হারুন মিয়া লোক মারফত জানতে পারেন বড়দল (দ.) ইউনিয়নের আমবাড়ী গ্রামের মৃত সাজ্জাত আলীর ছেলে আ. কুদ্দুছ তার গোদাম থেকে চাল চুরি করে নিয়ে গেছে।
বৃহস্পতিবার রাতে তাহিরপুর উপজেলা খাদ্য গোদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মফিজুর রহমান ও তাহিরপুর থানার বাদাঘাট পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই মো. মাহমুদুল হাসানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম অভিযান চালিয়ে দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়নের আমবাড়ী গ্রামের আ. কুদ্দুছের বাড়ীর পাশের একটি ঘর থেকে চাল উদ্ধার করে।
উদ্ধারকৃত চাল জামতলা বণিক সমিতির সভাপতি মুছা মিয়ার জিম্মায় রাখা হয়। ১ দিন পেরিয়ে গেলেও এঘটনায় মামলা দায়ের না করে চুরির ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে সূত্রে জানা গেছে।
এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে অভিযুক্ত আ. কুদ্দুছের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়। তাহিরপুর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক বিএম মুশফিকুর রহমান চাল উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, শুক্রবার ডিলার হারুন মিয়া বাদী হয়ে এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত তিনি মামলা দায়ের করেন নি। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে নিষ্পত্তির চেষ্টা চলছে বলে শুনেছি। এবিষয়ে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. মুস্তফা জাকারিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।