কমলগঞ্জে মণিপুরী নৃত্য দিবস পালিত

কমলগঞ্জ সংবাদদাতা :: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১০১তম স্মরণ উৎসব ও প্রথম মণিপুরী নৃত্য দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে রবীন্দ্রনাথ ও মণিপুরী নৃত্যের শতবর্ষের সেতুবন্ধন শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও নৃত্যানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ মণিপুরী সমাজ কল্যাণ সমিতির আয়োজনে কমলগঞ্জের ঘোড়ামারাস্থ সমিতির প্রধান কার্যালয়ে শুক্রবার বিকালে এ আলোচনা ও নৃত্যানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ মণিপুরী সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আনন্দ মোহন সিনহা। সমিতির সাধারণ সম্পাদক কমলাকান্ত সিনহার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন সিলেটের সিনিয়র জজ শ্যামকান্ত সিংহ, পৌরি সম্পাদক সুশীল কুমার সিংহ, মণিপুরী ললিতকলা একাডেমীর গবেষণা কর্মকর্তা প্রবাস সিংহ, মণিপুরী যুবকল্যাণ সমিতির সভাপতি প্রদীপ সিংহ, শহীদ গিরিন্দ্র সিংহ স্মৃতি পরিষদের সভাপতি উপেন্দ্র সিংহ, মণিপুরী সমাজ সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক শান্তুমনি সিংহ, কোষাধ্যক্ষ পুলিন কুমার সিংহ ও সহসাধারণ সম্পাদক রবি সিংহ।
অনুষ্ঠানে সরকারি নির্দেশনা মেনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ভার্চুয়াল আলোচনায় ভারতের আগরতলা, কলকাতা, গৌহাটি, ত্রিপুরা ও আসামসহ বিভিন্ন রাজ্যের মণিপুরী নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। ভার্চুয়াল আলোচনা শেষে মণিপুরী নৃত্যশিল্পীদের পরিবেশনায় নৃত্যানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
উল্লেখ্য, ১০১ বছর আগে ৬ নভেম্বর কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর সিলেটে এসে মাছিমপুরে মণিপুরী জাতির অপরূপ নৃত্যকলা দেখে অভিভ‚ত হন। সেই নৃত্যকলার সৌন্দর্যে তিনি মুগ্ধ হয়ে নৃত্যকলাকে শান্তিনিকেতনে চালু করে সারাবিশ্বের প্রসার ঘটিয়েছেন। তারই ধারাবাহিকতায় সংস্কৃতিকে ধরে রাখার জন্য মণিপুরী সম্প্রদায় রবীন্দ্রনাথের আগমন উপলক্ষে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।