সুনামগঞ্জ সদরে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবি

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জ জেলা সদরে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবিতে বিভিন্ন পেশার মানুষের উপস্থিতিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১টায় জেলা আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলনের আয়োজনে এ কর্মসুচি পালিত হয়।
এ সময় বক্তারা বলেন, ‘হাওরে শিক্ষার আলো জ্বালাতে প্রধানমন্ত্রী সুনামগঞ্জ জেলায় একটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় উপহার দিয়েছেন। অপরাপর মেগা প্রকল্পের ন্যায় বিশ্ববিদ্যালয়টিও পরিকল্পনামন্ত্রীর এলাকা শান্তিগঞ্জে স্থাপনের প্রক্রিয়া চলছে। একের পর এক মেগা প্রকল্প শহর থেকে ১৭ কিলোমিটার দূরে শান্তিগঞ্জ নিয়ে যাওয়া হলে দুইশ বছরে গড়ে ওঠা সুনামগঞ্জ শহর পরিত্যক্ত শহরে পরিণত হবে।
বক্তারা এই উদ্যোগের প্রতিবাদ জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টি জেলা সদরে স্থাপনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
সংগঠনের আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সদস্য সচিব অধ্যাপক সৈয়দ মহিবুল ইসলাম, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক অ্যাডভোকেট সভাপতি চান মিয়া, জেলা জাসদ সভাপতি এনামুজ্জামান চৌধুরী, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধরণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রুহুল তুহিন, অ্যাডভোকেট শেরেনূর আলী, মানবাধিকারকর্মী অ্যাডভোকেট আব্দুল জলিল, ফজলুল হক, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জুবের আহমদ অপু, সাবেক প্যানেল মেয়র মনির উদ্দিন ও জাসদ নেতা সালেহীন চৌধুরী।
পরে সুনামগঞ্জ জেলা সদরে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবি জানিয়ে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী, পরিকল্পনামন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর নিকট স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি রবিউল লেইছ রোকেশ, মুক্তিযোদ্ধা মালেক হোসেন পীর, হাওর আন্দোলন নেতা রমেন্দ্র কুমার দে মিন্টু, সুখেন্দু সেন, আলী নূর, সমাজকর্মী আলী হায়দার, জাপা নেতা রশিদ আহমদ, প্রভাষক ফারুক রশীদ, প্রভাষক আবু সাঈদ, অ্যাভোকেট আলম নূর, অ্যাডভোকেট জাবেদ মোহাম্মদ নূরে আলম, অ্যাডভোকেট মনির মিয়া প্রমুখ।