যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ, গ্রেপ্তার ৬০

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে চলছে বিক্ষোভ। নির্বাচনী রণক্ষেত্র হিসেবে পরিচিত রাজ্যগুলোতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে যখন টানটান উত্তেজনা চলছে ঠিক তখনই মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে বিক্ষোভ। পোর্টল্যান্ড শহরে আতশবাজি, হাতুড়ি এবং একটি রাইফেল জব্দ করেছে পুলিশ। এ সময় এখান থেকে ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
পোর্টল্যান্ড পুলিশের একজন মুখপাত্রের মেইলের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, দাঙ্গা ঘোষিত যে সমস্ত সমাবেশ জমায়েত হয়েছিল সেগুলি শহরতলিতে ছিল। সেখান থেকে ১০ জনকে গেপ্তার করা হয়েছে।
নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগ জানিয়েছে, বুধবার গভীর রাতে শহরে ছড়িয়ে পড়া বিক্ষোভ থেকে ৫০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
ওরেগনে প্রতিটি ভোট গণনার দাবিতে ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভ সহিংস হয়ে উঠলে ন্যাশনাল গার্ড সক্রিয় করেন ওরেগনের গভর্নর কেট ব্রাউন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, বিক্ষোভ থেকে কিছু মানুষ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়ে সিটি সেন্টারে কিছু দোকানের জানালা ভাঙচুর করেছে। একে দাঙ্গা বলে উল্লেখ করেছে পুলিশ।
এদিকে, মিনিয়াপোলিসে দুই শতাধিক বিক্ষোভকারী রাস্তা দখল করলে সেখান থেকে কয়েক জনকে আটক করেছে পুলিশ। মার্কিন গণমাধ্যমগুলো বলছে, বিক্ষোভকারীরা ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তার ভোট বন্ধের আহ্বানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছিলেন।
একই ধরণের বিক্ষোভ হয়েছে নিউ ইয়র্ক, ফিলাডেলফিয়া এবং শিকাগোতে।
ডেট্রয়েটে, ট্রাম্প সমর্থকরা ভোট গণনা কেন্দ্রের বাইরে জড়ো হয়ে ‘ভোট গণনা বন্ধ করো’ বলে স্লোগান দিতে থাকে। সেসময় জানালা ভাঙচুর করে তারা।
সূত্র : রয়টার্স ও বিবিসি