যুক্তরাজ্য ও বেলজিয়াম থেকে চীনে প্রবেশ নিষেধ

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক :: বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসে সবাই প্রায় কোণঠাসা। এক দেশে থেকে অন্য দেশে ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছিলো করোনা প্রদুভাবের প্রথম থেকে। কিছু কিছু দেশ ইতিমধ্যে বেশকিছু বিধিনিষেধ তুলে নিলেও রয়েছে অনেক দেশে। এরইমধ্যে চীন আবর করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে ইউরোপের দেশ যুক্তরাজ্য ও বেলজিয়াম থেকে তাদের দেশে প্রবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। আপাতত দেশ দুটি থেকে চীনের নাগরিক নয় এমন ভ্রমণপিপাসুরা চীনে প্রবেশ করতে পারবেন না।
চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া কোভিড-১৯ এর জন্য বেইজিং চলাচলে কঠোর নিয়ন্ত্রণ করে এবং স্বাস্থ্যবিধি বাস্তবায়ন করে দ্রæত সময়ের মধ্যে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। মার্চে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাসের কারণে চীন বিদেশি নাগরিকদের জন্য তার সব সীমান্ত বন্ধ করে দেয়।
নিজেদের সীমান্ত বন্ধ রাখার একপর্যায়ে কঠোরতা কমাতে থাকে। তারা বিদেশে আটকা পড়া লোকজনকে দূতাবাসগুলোর বিশেষ অনুমতি সাপেক্ষে চীনে ফেরার অনুমতি দিতে থাকে। তবে এ জন্য অবশ্যই সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে কোভিড-১৯ পরীক্ষায় নেগেটিভ ফলাফল পেতে হয়েছে। পাশাপাশি তাকে চীনে প্রবেশের পর দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হয়েছে।
ইউরোপজুড়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ার পর আবার সতর্ক বেইজিং। বুধবার যুক্তরাজ্যে চীনের দূতাবাসের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সেখান থেকে সাময়িক সময়ের জন্য চীনের নাগরিক নন এমন ব্যক্তিদের চীনে প্রবেশ বন্ধ রাখা হয়েছে। বুধবার একই ধরনের ঘোষণা দিয়েছে চীনের বেলিজিয়াম দূতাবাসও।