সিলেটে পিবিআই’র ৫ সদস্য করোনাক্রান্ত

স্টাফ রিপোর্ট
সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নিহত রায়হান আহমদ হত্যা মামলার তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) আট সদস্য করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মুহিদুল ইসলামসহ ৫ পুলিশ পরিদর্শক, সহকারী পুলিশ পরিদর্শক, ও দুই পুলিশ কনস্টেবল রয়েছেন। এদের মধ্যে ২ পুলিশ পরিদর্শক ও কনস্টেবল সজিব সিলেট বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতালে আর কনস্টেবল স্বপন রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অন্যরা নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন। আক্রান্তরা হলেন, পিবিআইয়ের ইন্সপেক্টর মুহিদুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আলম, শহিদুল ইসলাম, কামরুজ্জামান, তালাব মাহমুদ, এসআই লিটন চন্দ্র পাল ও কনস্টেবল স্বপন চন্দ্র দাস, সজিব।
বিষয়টি নিশ্চিত করে পিবিআই সিলেট পুলিশ সুপার খালেকুজ্জামান জানান, আক্রান্তদের মধ্যে পিবিআইয়ের পাঁচ পুলিশ পরিদর্শক, সহকারী পুলিশ পরিদর্শক একজন এবং দুজন কনস্টেবল রয়েছেন। এছাড়া রায়হান হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক মুহিদুল ইসলামও আক্রান্ত হয়েছেন।
জানা যায়, গত ১৩ অক্টোবর পুলিশ সদর দফতরের এক আদেশে মামলাটির তদন্তভার কোতয়ালি থানা পুলিশের কাছ থেকে পিবিআইতে স্থানান্তরিত হয়। আলোচিত মামলাটি তদন্ত করার জন্য পিবিআই কয়েকজন চৌকিস অফিসারকে দিয়ে একটি তদন্ত দল গঠন করে। এই হত্যা মামলায় সাময়িক বরখাস্ত হওয়া এসআই আকবর পলাতক থাকলেও কারাগারে রয়েছেন কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাস, কনস্টেবল হারুনুর রশীদ ও নিহত রায়হানকে ছিনতাকারী হিসেবে অভিযোগকারী শেখ সাইদুর রহমান। এছাড়াও পিবিআইতে রিমান্ডে থাকাবস্থায় অসুস্থ হওয়ায় হাসপাতালে রয়েছেন এএসআই আশেক এলাহি।