আজ হোয়াইট হাউস দখলের লড়াই

হেলাল উদ্দীন রানা, আমেরিকা থেকে :: আজ আমেরিকার ভোট। নির্বাচনে কি হবে, কে জিতবেন তা নিশ্চত করে বলা যাচ্ছেনা। সারা বিশ্ব রুদ্ধশ্বাস প্রতীক্ষায় প্রহর গুনছে। উত্তেজনার পারদ এখন তুঙ্গে। নির্বাচনের দিন অথবা নির্বাচন পরবর্তী সময়ে কি হবে এনিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ক্ষুদ্র জাতি গোষ্ঠী অথাৎ ইমিগ্রেন্ট সম্প্রদায় ও শান্তিপ্রিয় সাধারণ মানুষ আতংকিত হয়ে পড়েছেন। নানা কারণে এক দম বন্ধ করা থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে আসন্ন নির্বাচন ঘিরে। রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ডেমোক্রাট প্রতিদ্বন্দ্বী জোসেফ বাইডেন শেষ দিনের প্রচারে ৫টি করে সভা-সমাবেশ করেন ব্যাটালগ্রাউন্ড রাজ্যগুলোতে।
পেনসেলভেনিয়া, মিশিগান, উসকনসিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে পশ্চিমের এই তিনটি রাজ্য নির্বাচনে মূল যুদ্ধক্ষেত্রের কেন্দ্রে পরিনত হয়েছে। বাইডেন এবং ট্রাম্প উভয়ের জন্য এই রাজ্য তিনটি বিজয়ে নিয়ামক ভূমিকা রাখতে পারে। এ তিনটি রাজ্যের মোট ৩৬টি ইলেক্টোরাল ভোট রয়েছে।
গত সপ্তাহে এই রাজ্যের ভোটারদের মন জয় করতে বারবার ওখানে গেছেন দুই প্রার্থী। শেষ দিনের ক্যাম্পেইনেও টার্গেট এই রাজ্য গুলো। ফাইনাল জরিপের ফলাফলে ডেমোক্রাট প্রার্থী বাইডেন তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে ভাল ব্যবধানে নিয়ে এগিয়ে আছেন। কিন্তু প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ভেতরে রক্ত ক্ষরণ হলেও বাইরে এসব জরিপকে আমলে নিচ্ছেন না।
তিনি বলছেন জরিপ গুলো ভূয়া। তাঁর জয় হবেই। আর তাঁর সমর্থকরা তাঁকে অনুসরণ করছেন অন্ধের মতো। মন্ত্র মুগ্ধ হয়ে শুনছেন তাঁর কথা।
ইতিমধ্যে প্রায় ১০ কোটি ভোটার তাঁদের আাগাম ভোট দিয়ে ফেলেছেন। এই নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্রে রেকর্ড সংখ্যক ভোটার তাঁদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে চলেছন। উভয় শিবির থেকে ভোটারদের ভোট দিতে উৎসাহ দেয়া হচ্ছে।
এবারের নির্বাচনে মোট প্রায় ২৪ কোটির কাছাকাছি ভোটার রয়েছেন। এমনিতে যুক্তরাষ্ট্রে কাস্টিং ভোটের হার অনেক কম। কোন কোন রাজ্যে আগাম ভোট প্রদানের কাজ বন্ধ হয়ে গেছে।
যুক্তরাষ্ট্রের সময় সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৮টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহণের কাজ চলবে। তবে কিছু কিছু রাজ্যে এই সময়ের তারতম্য রয়েছে। ভোটের দিনের আবহাওয়া কোন কোন জায়গায় কিছুটা ঠান্ডা পরিলক্ষিত হলেও সার্বিক আবহাওয়া মোটামুটি ভাল থাকবে বলেই জানা গেছে।