বিশ্বনাথে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এমাদসহ দেড় শতাধিক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি
দীর্ঘ ১৭ বছর পর অনুষ্ঠিত সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার দশঘর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের দিন (২৯ অক্টোবর) সরকারি কাজে বাঁধা, প্রিজাইডিং অফিসারসহ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীকে অবরুদ্ধ করে পুলিশের উপর হামলা ও নির্বাচনী সরঞ্জাম বহনকারি গাড়ি ভাংচুর করার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শুক্রবার রাতে বিশ্বনাথ থানার এসআই নূর হোসেন বাদি হয়ে নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান এমাদ উদ্দিন খানকে প্রধান অভিযুক্ত করে মামলাটি দায়ের করেন। মামলা (নং ২০)। এ মামলায় ৩৫ জনের নাম উল্লেখ ও আরো ১০০/১২০ জনকে অজ্ঞাতনামা অভিযুক্ত করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গত ২৯ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দশঘর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের পর দশঘর এনইউ উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র থেকে সন্ধ্যায় ব্যালট বাক্স ও নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে উপজেলা সদরে ফেরার সময় পুলিশের উপর হামলা করে অভিযুক্তরা। এসময় নির্বাচনী সরঞ্জাম বহনকারী একটি পিকআপ (মিনি ট্রাক) গাড়ির গ্লাস ভাংচুর করে অভিযুক্তরা। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ৫ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে।

মামলা দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামীম মূসা বলে, অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।