এই সরকারের আমলেই চার লেনে উন্নীত হবে সিলেট-জাফলং সড়ক

এসি বাস সার্ভিস উদ্বোধনকালে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী


জৈন্তাপুর প্রতিনিধি ::
প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি বলেছেন, জৈন্তাপুর-গোয়াইনঘাট ও জাফলং-এর পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন ও বিকাশে দেশি-বিদেশী পর্যটক আকর্ষণ বাড়াতে সিলেট তামাবিল জাফলং-সড়কে যাত্রীসেবার মান উন্নয়ন ও চার লেন রাস্তা নির্মাণ কাজ বাস্তবায়নে আওয়ামী লীগ সরকার উদ্যোগ নিয়েছে। আমরা আশা করছি এই সরকারের আমলে সিলেট তামাবিল জাফলং সড়ক চার লেন কাজ সম্পন্ন করা সম্ভব হবে। শেখ হাসিনার সরকার সিলেট বিভাগের শিক্ষা, যোগাযোগ, স্বাস্থ্য ও পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে আন্তরিক।
প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী আরো বলেন, জৈন্তাপুর-গোয়াইনঘাট জাফলং এলাকার পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে সঠিক ভাবে অবকাঠামোগত কাজ বাস্তবায়ন করা হলে সরকার পর্যটন শিল্প থেকে ব্যাপক রাজস্ব আয় বৃদ্ধি করতে সক্ষম হবে। পর্যটকদের নিরপত্তা ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে সরকার আন্তরিক। সিলেটে পর্যটক আকর্ষন বাড়াতে সিলেট তামাবিল জাফলং সড়কে এসি-বাস সার্ভিস চালু একটি নব দিগন্তের সুচনা হল। তিনি উন্নত যাত্রী সেবার মান উন্নয়ন আরো বৃদ্ধি করতে সিলেট তামাবিল বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দের প্রতি আহবান জানান।
শনিবার সকাল ১০টায় সিলেট শহরের সোবাহানীঘাট এলাকায় সিলেট তামাবিল জাফলং বাস-মিনিবাস মালিক সমিতি আয়োজিত সিলেট তামাবিল জাফলং সড়কে এসি-বাস সার্ভিস চালুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আবু তাহের মোহাম্মদ শোয়েব, জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামাল আহমদ, দৈনিক একাত্তরের কথা পত্রিকার প্রধান নির্বাহী (সিইও) মো. আমির হোসেন খোকন, গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ, কানাইঘাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী, জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, জেলা পরিষদ সদস্য মুহিবুল হক মুহিব, কানাইঘাট মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, পূর্ব জাফলং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা লুৎফুর রহমান লেবু, ইমরান আহমদ মহিলা সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ এনামুল হক সরদার, গোয়াইনঘাট সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ মো. ফজলুল হক, অ্যাডভোকেট মামুন রশীদ, সিলেট তামাবিল বাস-মালিক সমিতির সভাপতি নাজিম উদ্দিন লস্কর, সাধারণ সম্পাদক পলাশ, সিলেট তামাবিল বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি মো. নুর উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী ইলিয়াছ আহমদ, সহ-সভাপতি আব্দুল হাফিজ, উপদেষ্টা জাকারিয়া মাহমুদ, জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. আলা উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সহকারী অধ্যাপক শাহেদ আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক হানিফ মোহাম্মদ, দৈনিক জৈন্তা বার্তা পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমদ, নিজপাট ইউনিয়নের (ভারপ্রাপ্ত) চেয়ারম্যান মো. ইয়াহিয়া, কানাইঘাট কলেজের অধ্যাপক ফরিদ আহমদ, সিলেট জনদাবী পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, জৈন্তাপুর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মো. আনোয়ার হোসেন, সিলেট তামাবিল বাস-মিনিবাস চালক শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ইউপি সদস্য নিজাম উদ্দিন, আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদ আলী, জৈন্তাপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম, দৈনিক একাত্তরের কথা পত্রিকার চিফ ফটোগ্রাফার এস এম সুজন, জৈন্তাপুর প্রতিনিধি নাজমুল ইসলাম, ছাত্রনেতা শাহীন আহমদ মনিরুজ্জমান মনির ও আল আমীন প্রমুখ।